1. hasanchy52@gmail.com : admin :
  2. amarnews16@gmail.com : Akram Hossain : Akram Hossain
মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০৩:৫২ পূর্বাহ্ন

দুর্নীতির অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় মানিকগঞ্জ জেলা হাসপাতালে সেই হিসাব রক্ষক সাময়িক বরখাস্ত

  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ৩০ জানুয়ারী, ২০১৯
  • ১২৮৪ বার দেখা হয়েছে

মোঃ সালাউদ্দিন রিপন

“মানিকগঞ্জ জেলা হাসপাতালের হিসাব রক্ষক ফুয়াদের ব্যাপক দুর্নীতি প্রমানীত” শিরোনামে গত ২১ জানুয়ারী   জাস্ট মেইল২৪.কমসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর  মানিকগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেলা হাসপাতালের হিসাব রক্ষক সৈয়দ মোঃ মাহমুদ ফুয়াদকে চাকুরি থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। বরখাস্তের আদেশে বলা হয়েছে হিসাব রক্ষক সৈয়দ মোঃ মাহমুদ ফুয়াদ এর বিরুদ্ধে বিপুল অংকের অর্থ আত্মসাৎসহ নানা অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাকে সরকারি কর্মচারী ( শৃংখলা ও আপীল ) বিধিমালা ২০১৮ এর ১২ বিধি মোতাবেক সরকারি চাকুরি হতে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। সাময়িক বরখাস্তকালিন সময়ে তিনি বিধি মোতাবেক খোরপোষ ভাতাদি পাবেন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক প্রশাসন ডাক্তার আবুল কালাম আজাদের স্বাক্ষরিত পত্রে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

মানিকগঞ্জ ২৫০ শয্যা হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে হিসাব রক্ষক সৈয়দ মোঃ মাহমুদ ফুয়াদের বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের কথা উল্লেখ করে গত বছরের ৯ সেপ্টেম্বর স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (প্রশাসন) বরাবর অভিযোগ দাখিল করেন ওই হাসপাতালের কয়েকজন কর্মচারী। এর প্রেক্ষিতে ২৮ অক্টোবর তৎকালীন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (প্রশাসন) ডাঃ এবিএম

মুজহারুল ইসলাম মানিকগঞ্জ সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ডাঃ মোঃ মিনহাজ উদ্দিনকে তদন্তকারী কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগ করেন।

তদন্ত রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছিল হিসাব রক্ষক সৈয়দ মোঃ মাহমুদ ফুয়াদ কোটেশনের মাধ্যমে ৪২ লাখ ৬ হাজার ৫০০ টাকা, ইউজার ফির ২ লাখ ৯৮ হাজার ৩৪০ টাকা, জেনারেটরের জ্বালানী তেল ক্রয়ের নামে ৪ লাখ, ৫৮ হাজার ১৯১ টাকা, হাসপাতাল পরিচ্ছন্নতার নামে ১৭ লাখ ৯৫ হাজার ৫০০ টাকা এবং বাসা ভাড়ার ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা সরকারি খাত থেকে উত্তোলন করে আত্মসাৎ করেছেন।

এছাড়া বিভিন্ন অর্থনৈতিক খাত ও উপখাতে স্থানীয় কোটশনের তুলনামূলক বিবরণীতে কোটেশন কমিটির সদস্য-সচিব ডাঃ মোঃ লুৎফর রহমানের স্বাক্ষর না থাকলেও জেলা হিসাব রক্ষণ কার্যালয়ে রক্ষিত অর্থ উত্তোলিত বিলে তার জাল স্বাক্ষর পাওয়া যায়। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে হাসপাতালের বাসা ব্যবহার করলেও তার ভাড়া সরকারি কোষাগারে জমা দেয়নি। পরিশোধ করেনি বিদ্যুৎ ও গ্যাস বিলও ।

বরখাস্তকৃত হিসাব রক্ষক সৈয়দ মো. মাহমুদ ফুয়াদ বলেন, ওয়ান সাইড তদন্ত রিপোর্টের আলোকে তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে। তিনি আইনের আশ্রয় নেওয়ার পাশাপাশি পুণঃ তদন্তের দাবি জানাবেন বলে জানান।

মানিকগঞ্জ ২৫০ শয্যা হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাঃ মো. সাইফুর রহমান বলেন, হিসাব রক্ষক সৈয়দ মোঃ মাহমুদ ফুয়াদ এর বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাকে সাময়িক ভাবে চাকুরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক প্রশাসন ডাক্তার আবুল কালাম আজাদের স্বাক্ষর যুক্ত এসংক্রান্ত একটি আদেশ বুধবার তিনি পেয়েছেন।বরখাস্তকৃত হিসাব রক্ষক সৈয়দ মোঃ মাহমুদ ফুয়াদকে বিষয়টি অফিসিয়াল ভাবে জানানো হয়েছে।

শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরও খবর
© All rights reserved © 2014 Amar News
Site Customized By Hasan Chowdhury