1. hasanchy52@gmail.com : admin :
  2. amarnews16@gmail.com : Akram Hossain : Akram Hossain
সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ০৫:৫২ অপরাহ্ন

আবেগ সামলে চলার উপায়

  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৪৬ বার দেখা হয়েছে

প্রেমে পড়ার অনুভূতি সাধারণত আপেক্ষিক হয়ে থাকে। প্রেমে পড়ার জন্য যেমন কিছু উপায় জানা প্রয়োজন, আবেগকে নিয়ন্ত্রণ করার জন্যও প্রয়োজন হয় কিছু কৌশল জানার। কারও প্রতি ভালোলাগা কিংবা আবেগ সামলে চলার জন্য কিছু উপায় জেনে নেয়া জরুরি। যখন কাউকে আপনার ভালোলাগবে কিন্তু তার সঙ্গে ভালোবাসার সম্পর্কে জড়ানো সম্ভব না তখন মেনে চলুন এই বিষয়গুলো-

এড়িয়ে যান

যাকে পছন্দ করেন তাকে কৌশলে এড়িয়ে যান। যার প্রতি আপনার মনে এক ধরনের আবেগ তৈরি হয়েছে তাকে এড়িয়ে চললে আবেগ নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। এড়িয়ে চলতে গিয়ে অনেক মানুষ কষ্ট দিয়ে থাকেন। তাকে কষ্ট দেবেন না। বরং আবেগ নিয়ন্ত্রণ করুন। যাকে পছন্দ করেন তার কাছ থেকে দূরে অবস্থান করুন।

দেয়াল তৈরি করুন

যার প্রতি ভালোলাগা বা মোহ তৈরি হয়েছে তার সঙ্গে সব ধরনের যোগাযোগ বন্ধ করে দিন। অদৃশ্য একটি দেয়াল রাখুন। এর মাধ্যমে মানুষটিকে আপনি সহজেই এড়িয়ে চলতে পারবেন। যার প্রতি আপনার ভালোলাগা কাজ করেছে, সেই মানুষকে আলিঙ্গন বা স্পর্শ করা থেকে বিরত থাকুন। তার প্রতি বন্ধুত্বের হাত বাড়াবেন না। তবে যেকোনো প্রয়োজনে সহযোগিতা করতে পারেন।

আবেদনময়ী অঙ্গভঙ্গী গ্রহণ করবেন না

যার প্রতি মোহ কাজ করছে কিন্তু তার সঙ্গে এখনই ভালোবাসার সম্পর্ক তৈরি করা সম্ভব না তার কাছ থেকে কোনো আবেদনময়ী অঙ্গভঙ্গী গ্রহণ করবেন না। আপনার সম্পর্কে প্রণয়ী কোনো কথা বলতে দেবেন না। সে যদি কোনো কাজ আপনার জন্য করতে চায়, তাকে থামিয়ে দিন। কারণ এর মাধ্যমে ভালোবাসা জোরদার হয় যা আপনি চান না।

মানুষটি কেন উপযুক্ত নয়

মানুষটি কেন উপযুক্ত নয় সেই বিষয়ে চিন্তা করুন। আপনার গুণগুলোর সঙ্গে তার গুণগুলো মিলিয়ে দেখুন। প্রয়োজনে লিখে ফেলুন। নিজের সঙ্গে সেই মানুষের গুণগুলো তুলনা করে দেখুন কী কারণে তার সঙ্গে ভালোবাসার সম্পর্ক তৈরি করতে চাইছেন না। এই বিষয়ে দৃঢ় হোন।

নিজের প্রয়োজনের ব্যাপারে সচেতন হোন

ব্যক্তিগত প্রয়োজনের ব্যাপারে সচেতন হোন। নিজের যা প্রয়োজন সেদিকে খেয়াল রাখুন। নিজেকে ভালোবাসুন। কীভাবে নিজের স্বার্থ উদ্ধার করা যায় সেটি চিন্তা করুন। এই কারণে নিজের মধ্যে যেসব দুর্বল দিক রয়েছে সেসব চিহ্নিত করে সচেতন হয়ে উঠুন। নিজের সীমাবদ্ধতাগুলো কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করুন ও ব্যক্তিগত অর্জনের কথা স্মরণ করুন।

 

/মহিদ

শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরও খবর
© All rights reserved © 2014 Amar News
Site Customized By Hasan Chowdhury