1. hasanchy52@gmail.com : admin :
  2. amarnews16@gmail.com : Akram Hossain : Akram Hossain
বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ০৫:৪৭ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
নৌকায় ভোট চাইতে পারবে না বলে সাফ জানিয়ে দিলেন মানিকগঞ্জ জেলা আ.লীগের অর্থবিষয়ক সম্পাদক রহিম খান মানিকগঞ্জে সাটুরিয়া থানা পুলিশের উদ্যোগে দুঃস্থদের মাঝে কম্বল বিতরণ মানিকগঞ্জে আন্তঃজেলা ডাকাতদলের ৭ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ মানিকগঞ্জ -১ আসনের সংসদ সদস্য নাঈমুর রহমান দূর্জয় করোনায় আক্রান্ত মানিকগঞ্জে মুচলেকায় ছাড়া পেলেন শিক্ষানবীশ আইনজীবী মাসুদ মিয়া পদ্মার চরাঞ্চলে মানিকগঞ্জ জেলা পুলিশের শীতবস্ত্র বিতরণ গণমাধ্যমের লোগো ব্যবহার করে ফেন্সিডিল বহন, আটক ২ রিয়ালের সঙ্গে আনচেলত্তির ইতিহাস শাহরুখ কন্যার পার্টির ছবি ভাইরাল দুটি ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালালো উ. কোরিয়া

সানি লিওনকে ঘিরে যত বিতর্ক

  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২৮ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ৪৯ বার দেখা হয়েছে

ভারতীয় শোবিজ অঙ্গনে অনেকদিন ধরেই কাজ করছেন সানি লিওন। ধীরে ধীরে নিজের শক্ত অবস্থান তৈরি করছেন। কিন্তু মাঝে মাঝেই নানা কারণে বিতর্কে জড়িয়ে যান।

সম্প্রতি ‘মধুবন মে রাধিকা নাচে’ গানে নেচে বিতর্কিত হয়েছেন সানি। হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগও উঠেছে। তাকে ভারত ছাড়া করার হুমকিও দেওয়া হয়েছে।

তবে সানি এবারই প্রথম এমন বিতর্কে জড়ালেন তা কিন্তু নয়। সানি লিওনের বিতর্কিত নানা ঘটনা নিয়ে এই প্রতিবেদন:

রাগিনী এমএমএস টু নিয়ে বিতর্ক: একতা কাপুর পরিচালিত ‘রাগিনী এমএমএস-টু’ সিনেমার জন্য বিতর্কে জড়িয়েছেন সানি। তার গোসলের এবং অভিনেত্রী সন্ধ্যা মৃদুলের সঙ্গে চুম্বনের দৃশ্যসহ বেশ কিছু রগরগে দৃশ্য করার কারণে বিতর্কের মুখে পড়েন সানি। দৃশ্যগুলোর কারণে তার বিরুদ্ধে অনেকে প্রতিবাদও করেন।

ধর্ষণ নিয়ে মন্তব্য করে বিতর্ক: সানি লিওন তার টুইটার বার্তায় লিখেছিলেন, ‘রেপ ইজ নট অ্যা ক্রাইম, ইটস জাস্ট সারপ্রাইজিং সেক্স’। এটি পরবর্তী সময়ে প্রকাশ করেন তার সাবেক ‘বিগ বস’ প্রতিযোগী কামাল আর খান। এমন মন্তব্য স্বাভাকিভাবেই বিতর্কের ঝড় তুলেছিল। যদিও সানির দাবি, তিনি এমন কোনো কথা বলেননি।

‘জিসম-টু’ নিয়ে বিতর্ক: জিসম-টু সিনেমায় সানি লিওনের নাম উচ্চারণের পর থেকেই উঠেছিল বিতর্ক। বলিউড তারকায় পর্নো সিনেমার নায়িকাকে নেওয়ায় সিনেমার পরিচালকের মহেশ ভাটকে নিয়ে সমালোচনার ঝড় ওঠেছিল। এরপর সিনেমার পোস্টার বিতর্ক থেকে শুরু করে রগরগে দৃশ্য, সিনেমার প্রচার বন্ধ করা, এমনকি সানি লিওনের এ সিনেমায় অভিনয় করার বিষয়েও বিতর্ক তৈরি হয়েছিল। সানি লিওনের বিরুদ্ধে বিতর্কের মূল কারণ ছিল তার সিনেমা সমাজে বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে।

পর্নো সিনেমা নিয়ে মন্তব্য করে বিতর্কিত: বলিউডের রুপালি পর্দায় অভিষেকের পরেও সানি লিওনকে শুনতে হয়েছে তার অতীত পেশা নিয়ে নানা কটুক্তি। তাই তার পর্নো সিনেমায় কাজ করা নিয়ে সানি লিওন বলেছিলেন, ‘পর্নো তারকা মানেই প্রস্টিটিউট নয়’। তাকে নিয়ে বলিউড দর্শকদের এমন নেতিবাচক মন্তব্যের কারণে তিনি বলেছিলেন, ‘ইন্ডিয়াতে কোনো পর্নো সিনেমায় শিল্প নেই তাই তাদের এ সম্পর্কে কোনো ধারণা নেই।’ সানির এমন মন্তব্য ভারতীয় মিডিয়া এবং বলিউড পাড়ায় তাকে বিতর্কিত করেছিল।

বিগ বস বিতর্ক: ‘বিগ বস’ এর পঞ্চম আসরে অংশগ্রহণ করেছিলেন সানি লিওন। সেই সময় তার আসল পরিচয় বাইরের কেউ জানতো না। অনেকটা নিজের আসল পরিচয় গোপন করেই ‘বিগ বসে’ এসেছিলেন তিনি। তারপর তার হাসি এবং আকর্ষণীয় সব আচরণ দিয়ে দর্শকদের মন জয় করে নেন এ অভিনেত্রী। কিন্তু তার পরিচয় প্রকাশের পর থেকেই শুরু হয় বিতর্ক। এমনকি ইন্ডিয়ান মিনিস্ট্রি অব ইনফরমেশন অ্যান্ড ব্রডকাস্টিং অভিযোগ তুলেছিল টিভি চ্যানেল কালার সানি লিওনকে তাদের অনুষ্ঠানে নিয়ে পর্নোগ্রাফীর প্রচারণা করছে। তারপর সানিকে পড়তে হয়েছিল নানা বিতর্কে। যদিও এর পরেই মহেশ ভাটের জিসম-টু সিনেমার প্রস্তাব পেয়েছিলেন সানি লিওন।

সাংবাদিককে চড়: গুজরাটের সুরাটে ‘প্লে হোলি উইথ সানি লিওন’ শীর্ষক একটি অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিলেন সানি লিওন। স্বামী ড্যানিয়েল ওয়েবারকে নিয়ে সকালেই সেখানে পৌঁছে গিয়েছিলেন ইন্দো-কানাডিয়ান এ অভিনেত্রী। সেখানে একটি পাঁচ তারকা হোটেলে ওঠেন তারা। হোটেলে পৌঁছানোর পর পরই একজন সাংবাদিক হোটেলের বারান্দাতেই সানির সাক্ষাৎকার নেওয়া শুরু করেন। কয়েকটি প্রশ্ন করার পরই সাংবাদিক তাকে প্রশ্ন করেন, ‘আপনি আগে পর্নো তারকা ছিলেন, এখন আপনি সিনেমার তারকা। আপনি এখন কত টাকা নেন?’ প্রশ্ন শুনে অত্যন্ত রেগে যান সানি। সাংবাদিককে আবারো প্রশ্নটি করতে বলেন তিনি। সাংবাদিক তখন বলেন, ‘রাতে অনুষ্ঠান করার জন্য আপনি কত টাকা নেন?’ প্রশ্ন শুনে সঙ্গে সঙ্গে তার জবাব দেন সানি। সাংবাদিককে সবার সামনে কষে একটা চড় মারেন তিনি।

কনডমের বিজ্ঞাপন বিতর্ক: সিনেমার পাশাপাশি বিজ্ঞাপনেও দেখা যায় তাকে। বেশ কয়েকটি কনডমের বিজ্ঞাপনেও দেখা গেছে এ অভিনেত্রীকে। ভারতের পর্যটন নগরী গোয়ার কাদাম্বা ট্রান্সপোর্ট করপোরেশনের বাসগুলোতে সানি লিওনের বিজ্ঞাপন ব্যবহার হতো। কিন্তু পরবর্তী সময়ে এটি নিয়ে আপত্তি জানানো হয়। এসব বিজ্ঞাপন আপত্তিকর জানায় রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব ও বিভিন্ন সংগঠনের সদস্যরা। পরে তাদের আপত্তির মুখে সানির এই বিজ্ঞাপনগুলো সরিয়ে ফেলা হয়।

পর্নোগ্রাফি প্রচারের অভিযোগ: চেন্নাইয়ে একটি অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিলেন সানি লিওন। এরপর চেন্নাইয়ের নাজারেথপেত থানায় এই অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন এনোচ মজেস নামের এক ব্যক্তি। অভিযোগে বলা হয়েছে, ‘মাস্তিজাদে’ সিনেমাখ্যাত এই অভিনেত্রী পর্নোগ্রাফি প্রচার করছেন, যা ভারতীয় আইনে নিষেধ রয়েছে। এর ফলে ভারতের সংস্কৃতিতে খারাপ প্রভাব পড়বে বলে মনে করেন তিনি। এ কারণে সানিকে গ্রেপ্তারের অনুরোধ জানান এই ব্যক্তি। পরে আবারো এ ধরনের জটিলতায় পড়েন সানি লিওন। এই অভিনেত্রীর জনপ্রিয়তার কথা মাথায় রেখে ভারতের বেঙ্গালুরুতে একটি অনুষ্ঠানে তাকে পারফরম্যান্স করার আমন্ত্রণ জানানো হয়। সবকিছু ঠিকঠাক চলছিল। কিন্তু অনুষ্ঠানে সানির উপস্থিতি নিয়ে আপত্তি জানিয়েছে কর্ণাটক রক্ষণ বেদিকা যুবসেনা নামের একটি সংগঠন। সংগঠনটির পক্ষ থেকে জানানো হয়, অনুষ্ঠানে কন্নড় অভিনেত্রীদের পারফরম্যান্স নিয়ে তাদের কোনো আপত্তি নেই। কিন্তু সানি লিওনকে পারফর্ম করতে দিতে রাজি নন তারা।

নাচ নিয়ে বিতর্ক: সম্প্রতি সানি লিওনের নতুন মিউজিক ভিডিও ‘মধুবন মে রাধিকা নাচে’ নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে। এই বলিউড সেনসেশনের বিরুদ্ধে অশ্লীলতার অভিযোগ উঠেছে। গান প্রকাশের পর থেকে নেটিজেনরা এটি নিয়ে আপত্তি জানাতে থাকে। বৃন্দাবনের পুরোহিত সান্ত নাবাল গিরি মহারাজ সানি লিওনকে ভারত ছাড়া করার হুমকি দেন। হুমকি দেওয়ার তালিকায় ভারতের মধ্য প্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নরোত্তম মিশ্রাও আছেন।

শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরও খবর
© All rights reserved © 2014 Amar News
Site Customized By Hasan Chowdhury