1. hasanchy52@gmail.com : admin :
  2. amarnews16@gmail.com : Akram Hossain : Akram Hossain
বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০১:৩৫ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
এস.এস.সি পরীক্ষায় গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়েছেন ফয়সাল মাহমুদ এস.এস.সি পরীক্ষায় গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়েছেন সামিউল হাসান সিফাত এস. এস. সি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পেয়েছে মানিকগঞ্জ পৌর আওয়ামীলীগ নেতা ছেলে আলামিন মানিকগঞ্জ যুবদলের যুগ্ন আহবায়ক মাসুদ পারভেজ আটক সাউথইস্ট ব্যাংক এজেন্ট ব্যাংকিং জয়মন্টপ শাখার প্রথম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে আলোচনা সভা রোহিঙ্গাদের জন্য সাড়ে ৭ মিলিয়ন ডলার দেবে নেদারল্যান্ডস এসএসসি পরীক্ষায় মানিকগঞ্জের শামস আলিয়া ইস্মি জিপিএ-৫ পেয়েছে মুন্নু ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজে পাসের হার শতভাগ, শিক্ষার্থীদের বাঁধভাঙা উল্লাস ১০ ডি‌সেম্বর স্থান ইস্যুতে অনড় বিএনপি ও সরকার আমরা যুদ্ধ ও সংঘাতের ক্ষতি বুঝি, প্লিজ যুদ্ধ থামান: প্রধানমন্ত্রী

মানিকগঞ্জে মুন্নু ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ গণিত অলিম্পিয়াডে প্লাজামা বিজ্ঞনী অধ্যাপক ড. এ এ মামুন

  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১১ নভেম্বর, ২০২২
  • ৪৫৫ বার দেখা হয়েছে

এস এম আকরাম হোসেন:

“গণিতের প্রকাশ, প্রতিভার বিকাশ”প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে মানিকগঞ্জের মুন্নু ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ কর্তৃক “গণিত ক্লাব “১ম গণিত অলিম্পিয়াড-২০২২ অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্লাজামা বিজ্ঞনী  অধ্যাপক ড. এ এ মামুন ও বিশেষ অতিথির বক্তব্যে রাখেন মুন্নু ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের চেয়ারম্যান আফরোজা খান রিতা।

মুন্নু ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ লে. কর্ণেল মোঃ জহিরুল ইসলাম ( অব.) অনুষ্ঠানের  সভাপতিত্ব করেন। এবারের গনিত অলিম্পিয়াডের কনভেনরের দায়িত্ব পালন করেন গনিত বিভাগের শিক্ষক প্রভাষক শাওন দাস তন্ময় এবং কো-কনভেন সাব্বির আহম্মেদ। এসময় অত্র স্কুল এন্ড  কলেজের শিক্ষকবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

চারটি ক্যাটাগরিতে  গণিত অলিম্পিয়াড পরীক্ষায় জেলার  ২০ টির অধিক স্কুল ও কলেজের প্রায় ২১ হাজার শিক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে।

৩০ মিনিট ব্যাপী এ পরীক্ষায় প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে ১০টি সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন (নিজ পাঠ্যক্রম) এবং ১টি সৃজনশীল প্রশ্ন সমাধান করে। প্রতিটি সংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তরের মান ২ এবং সৃজনশীল প্রশ্নের মান ১০। সর্বমোট ৩০ নম্বরের পরীক্ষায় হয়।

শিক্ষার্থীদের জন্য বাংলা ও ইংরেজি ভার্সনের প্রশ্ন থাকবে। শিক্ষার্থীরা তাদের সুবিধা মতো ভার্সনে প্রশ্নের উত্তর করার সুযোগ পাবেন।

মেধার ভিত্তিতে প্রত্যেক ক্যাটাগরি থেকে ১০ জনকে পুরষ্কৃত করা হয়।এছাড়া প্রত্যেক অংশগ্রহণকারীকে সার্টিফিকেট এবং টি-শার্ট প্রদান করা হয়। চারটি ক্যাটাগরিতে যারা প্রথম স্থান অধিকার করেছেন তারা হলেন, প্রাথমিক কাটাগরিতে প্রথম কানিজ ফাতেমা স্কুল এন্ড কলেজের ৫ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী ফাতেমা ওয়ারেশ, নিম্ন মাধ্যমিক কাটাগারিতে প্রথম মানিকগঞ্জ সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণীর শিক্ষার্থী অর্নব ষোষ, মাধ্যমিক ক্যাটাগরিতে সুরেন্দ্র কুমার সরকারি বালিকা উচ্চ  বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থী সায়রা হোসেন, উচ্চ মাধ্যমিক কাটাগরিতে প্রথম মুন্নু এন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজের এস.এস.সি শিক্ষার্থী তাহমীদ জাফর  প্রথম স্থান অর্জন  করেন। এছাড়া প্রত্যেক কাটাগরিতে আরোও নয়জন করে বিজয়ীর নাম ঘোষনা করেন।  বিজয়ীদের মাঝে   নগদ প্রাইজমানি, কেস্ট ও ম্যাডেল ও সনদপত্র বিতরণ করেন অতিথিবৃন্দরা।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্লাজামা বিজ্ঞনী  অধ্যাপক ড. এ এ মামুন বলেন, যারা বিজয়ী হতে পারেন নাই, মন খারাপ করার কোন কারন নাই। এখানে তোমাদের অংশ গ্রহন করাটাই বড় কথা। ভালোভাবে পড়াশোনা করলে একদিন না একদিন বিজয়ী তোমরা পাবেই। তোমার প্রাপ্ত সন্মান পাবে।

তিনি আরো বলেন, তোমাদের স্বপ্ন দেখতে হবে। তোমাদের স্বপ্ন দেখে পড়তে হবে। সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নের পথ খুজে বের করতে হবে। সেই পথ তোমাদের দেখিয়ে দিবে শিক্ষকেরা, যারা তোমার আশে পাশে আছে রয়েছে। আমার জীবন নিয়ে দুইটা কথা বলতে পারি ।আমি প্রমান করেছি স্বপ্ন মানুষকে কোথায় নিতে পারে।

তোমাদের স্বপ্ন দেখতে হবে, যে স্বপ্ন তোমাদের ঘুম ভাংগিয়ে দিবে। সেই স্বপ্ন দেখে তোমারা চেষ্টা চালিয়ে যাবে স্বপ্ন পূরনে। আমি বিশ্বাস করি, তোমাদের এই স্বপ্ন একদিন না একদিন পুরণ হবেই হবে।

 

মুন্নু ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের চেয়ারম্যান আফরোজা খান রিতা বলেন, আমার মরহুম বাবা এই স্কুলটি করে গিয়েছিল বলেই আমরা এখানে কথা বলতে পারছি। এই স্কুলটি নিয়ে আমার বাবার অনেক স্বপ্ন ছিল । মানিকগঞ্জের সন্তানদের সুশিক্ষার কথা চিন্তা করে এই স্কুলটি প্রতিষ্ঠা করেছেন। আমরা অভিভাবকরা সবসময় চিন্তা করি আমাদের সন্তানদের কিভাবে সামনের দিকে এগিয়ে নেওয়া যায়। তাদের সুন্দর একটি ভবিষ্যত গড়া। শুধু ভালো রেজাল্ট করলেই হবে না। নিজেকে সুস্থ্য রাখতে হবে, পাশাপাশি ভালো মানুষ হতে হবে, এই দুইটির সমন্বয় থাকতে হবে। তাহলে একজন সত্যিকার মানুষ হিসেবে দেশের জন্য, দেশের মানুষের জন্য কিছু দিতে পারবে। আমার বাবা সারা জীবন মানুষের কল্যানের জন্য কাজ করে গেছেন। বাবার স্বপ্ন পূরনে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

 

শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরও খবর
© All rights reserved © 2014 Amar News
Site Customized By Hasan Chowdhury