1. hasanchy52@gmail.com : admin :
  2. amarnews16@gmail.com : Akram Hossain : Akram Hossain
সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০৪:০৫ অপরাহ্ন

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ, মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে হয়রানীর অভিযোগ

  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ১০ জুন, ২০১৮
  • ১০৪০ বার দেখা হয়েছে

ষ্টাফ রিপোর্টার : মানিকগঞ্জের হরিরামপুর উপজেলার যাত্রাপুর এলাকাধীন ৫টি সরকারী রাস্তা/খাল দখলকে কেন্দ্র করে সম্প্রতি কয়েকটি জাতীয় দৈনিক, অনলাইন নিউজ পোর্টালে ‘মূল সড়ক রেখে গলিতে অভিযান’নোটিশ ছাড়াই সীমানা প্রাচীর ভাঙলো ভ’মি কর্মকর্তার’সহ বিভিন্ন শিরোনামে যে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে তার প্রতিবাদ জানিয়েছেন স্থানীয় বয়ড়া ইউপি সদস্য মাসুদুর রহমান মাসুদ, মোঃ মহর আলী ও যাত্রপুর উচ্চবিদ্যালয়ের নৈশ প্রহরী ফারুক হোসেন ফালু। এ বিষয়ে মিথ্যা অভিযোগে হয়রানী করছে মর্মে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন মোঃ মহর আলী । মহর আলী বলেন, স্থানীয় সালাউদ্দিন ও ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা রফিক দেওয়ান এবং তার ছেলেরা সাংবাকিদের ভুল তথ্য দিয়ে মিথ্যা, বানোয়াট, ভিত্তিহীন সংবাদ প্রকাশ করেছে বলে অভিযোগ করেন তারা ।

অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মানিকগঞ্জের হরিরামপুর উপজেলার যাত্রাপুর এলাকাধীন আরএস নকশা মোতাবেক ১ । ভ’ইয়া ও চৌধুরী বাড়ী হতে ্প্রায় ২৮-৩০ ফুট প্রসস্ত সরকারী রাস্তা/খাল ইছামতি নদী পর্যন্ত বেদখল হয়ে আছে । ২ । কফিলের বাড়ি হতে মৃত ফজর আলীর বাড়ী পর্যন্ত সরকারী ১৫-২০ ফুট প্রশস্ত রাস্তা/খাল ইছামতি নদী পর্যন্ত বেদখল হয়ে আছে । ৩। যাত্রাপুর স্কুল সংলগ্ন পশ্চিম পাশ হতে ১৫-২০ ফুট প্রসস্ত সরকারী রাস্তা/খাল ইছামতি নদী পর্যন্ত বেদখল হয়ে আছে । ৪ । যাত্রাপুর স্কুল সংলগ্ন পূর্ব পাশ হতে ১৫-২০ ফুট প্রসস্ত সরকারী রাস্তা/খাল ইছামতি নদী পর্যন্ত বেদখল হয়ে আছে । ৫ । লেবু মাষ্টারের বাড়ী হতে  ১৫-২০ ফুট প্রসস্ত সরকারী রাস্তা/খাল ইছামতি নদী পর্যন্ত বেদখল হয়ে আছে । এছাড়াও যাত্রাপুর হাই স্কুলের মাঠের দক্ষিন পশ্চিম কোন হতে লেবু মাষ্টারের বাড়ী পর্যন্ত মেইন রোডের উভয় পাশ বেদখল হয়ে আছে । উপরোক্ত রাস্তা/খাল বেদখল করে রেখেছে কিনা কিংবা কে বেদখল করে রেখেছে তা তাদের জানা নাই । তারা নিজেও চায় যদি বেদখল হয়ে থাকে তা উদ্ধার হোক অথচ আমাকে বিএনপি জামায়াত শিবিরের মদদ দাতা ও যাত্রাপুর স্কুলের নাইটগার্ড ফারুক হোসেনকে জড়িয়ে একটি চক্র উল্লেখ করে স্থানীয় সালাউদ্দিন ও রফিক দেওয়ান গং মিলে আমাদের বিরুদ্ধে একের পর এক মিথ্যা অভিযোগ তুলে হয়রানী করছে । এছাড়া উচ্চ আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পাকা স্থাপনা নির্মান করার অভিযোগ তুলেছেন যা সম্পূর্ন মিথ্যা ও বানোয়াট । উচ্চ আদালত আমার পক্ষে রায় দিয়েছেন । সেই রায় মোতাবেক আমি আমার স্বত্ত দখলীয় জায়গায় পাকা স্থাপনা নির্মান করছি । এছাড়া আমি আমার এলাকায় কোন রকম আইন শৃংখলার অবনতি কিংবা সরকার বিরোধী কোন কার্যকলাপের সহিত জড়িত নই । যাহা সুষ্ঠু তদন্তে প্রকাশ পাবে । দ্বিতীয়ত থানা পুলিশ কিংবা কোন ভ’মি অফিসের কর্মকর্তাদের সাথে আমার কোন সখ্যতা নাই । এছাড়া ভূমি কর্মকর্তাদের ঘুষ চাওয়া কিংবা দেয়ার বিষয়ে আমরা কিছুই জানি না । আমরা নিজেরাও জমি সংক্রান্ত বিরোধটি স্থায়ী সমাধান প্রয়োজন বোধ করছি । অথচ সম্প্রতি আমাকেসহ কয়েকজনকে জড়িয়ে বিভিন্ন জাতীয় দৈনিক,অনলাইন নিউজ পোর্টালে সাংবাকিদের ভুল তথ্য দিয়ে মিথ্যা,বানোয়াট,ভিত্তিহীন সংবাদ প্রকাশ হওয়ায়  উক্ত সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছন তারাঁ ।

 

শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরও খবর
© All rights reserved © 2014 Amar News
Site Customized By Hasan Chowdhury