1. hasanchy52@gmail.com : admin :
  2. amarnews16@gmail.com : Akram Hossain : Akram Hossain
বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:৩৮ পূর্বাহ্ন

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় প্রবাসীর বাড়িতে ডাকাতির ঘটনায় আটক ৬

  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ৬ জুলাই, ২০১৯
  • ১৭২৭ বার দেখা হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার:

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় প্রবাসীর বাড়িতে ডাকাতির ঘটনায় ৬জন ডাকাতকে গ্রেফতার ও ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র ও আলামত উদ্ধার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃত ৬ জনের সবাই আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্য বলে জানিয়েছেন পুলিশ।

 

গত ২৬ জুন সাটুরিয়া উপজেলার বালিয়াটি খলিলাবাদ চরপাড়া গ্রামে সৌদী প্রবাসী ওয়াসিম মিয়ার বাড়ীতে ডাকাতিকালে ডাকাতদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে প্রবাসী ওয়াসম মিয়ার স্ত্রী রাহেলা বেগম, তার বোন জুলেখা বেগম. মা ছাহেরা খাতুন, বোনের ছেলে মোস্তফা মারাত্বকভাবে আহত হয়। মুখোশধারী ডাকাতরা স্বর্ণালংকার, নগদ টাকাসহ প্রায় ৩ লাখ ৭৪ হাজার টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

 

মানিকগঞ্জ সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাফিজুর রহমান বলেন, শুক্রবার অভিযান চালিয়ে মানিকগঞ্জ এবং ঢাকার আশুলিয়া, সাভার, ধামরাইসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে আন্ত:জেলা ডাকাত দলের সদস্যদের গ্রেফতার করা হয়।

 

আটক ব্যক্তিরা হলেন- ঢাকার ধামরাই উপজেলার ছোট ভাকুলিয়া গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে সোহেল রানা ওরফে মাসুদ রানা( ২৭), কেরাণীগঞ্জ উপজেলার কালীগঞ্জ গ্রামের আঃ সামাদের চেলে আবু সাঈদ (২৭), পিরোজপুর জেলার সদর উপজেলার দূর্গাপুর গ্রামের হামেদ শেখের ছেলে ইমাম হোসেন (৩৬) এবং আব্দুল আওয়াল শেখের ছেলে রফিকুল ইসলাম ওরফে রফিক মিয়া (২৭), ঝালকাঠি জেরার রাজাপুর উপজেলার আঙ্গারিয়া গ্রামের মাহবুব মৃধার ছেলে মো: মিরাজ (৩৪) এবং পাবনা জেলার আমিনপুর উপজেলার কাজিরহাট গ্রামের আইয়ুব আলী ইকুর ছেলে মামুন ওরফে জুলমত (৫৫)।

 

শনিবার সকালে মানিকগঞ্জ জেলা পুলিশ কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিংকালে তিনি আরো বলেন, আটক ব্যক্তিরা আন্ত:জেলা ডাকাত দলের সদস্য। তারা ঢাকার আশুলিয়াসহ আশেপাশের এলাকায় বসবাস করে এবং বিভিন্ন এলাকায় ডাকাতি করে সেখানে চলে যায়। সাটুরিয়া থানার অফিসার ইন চার্জ (অপারেশন) মতিয়ার রহমান ও অফিসার ইন চার্জ (তদন্ত) আবুল কালামকে নিয়ে তিনি মোবাইল ট্র্যাকিং করে সোহেল রানা ওরফে মাসুদ রানাকে আটক করেন। পরে তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে অন্যান্যদের আটক ও মালামাল উদ্ধার করা হয়।

 

আটক ব্যক্তিদের কাছ থেকে চাঞ্চল্যকর তথ্য পাওয়া গেছে। দ্রুততম সময়ের মধ্যে মামলার লুট হওয়া মালামাল উদ্ধার হবে বলে তিনি জাজান।

প্রেস ব্রিফিংকালে মানিকগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহিউদ্দিন আহমেদ, জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার সহকারী পুলিশ সুপার হামিদুর রহমান সিদ্দিকী উপস্থিত ছিলেন।

 

শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরও খবর
© All rights reserved © 2014 Amar News
Site Customized By Hasan Chowdhury