1. hasanchy52@gmail.com : admin :
  2. amarnews16@gmail.com : Akram Hossain : Akram Hossain
শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:৪৪ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
পরিবেশ দূষনের দিক দিয়ে বাংলাদেশ একটি বিপদজনক পরিস্থিতি মোকাবেলা করছে: গৃহায়ন ও গনপূর্ত মন্ত্রী সিংগাইরে প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ পালিত ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উদযাপন উপলক্ষে আলোচনা সভা উপজেলা ভোটে লড়তে ইউপি চেয়ারম্যানের পদত্যাগ আল—আরাফাহ ইসলামী ব্যাংকে চাকরি, লাগবে না অভিজ্ঞতা মানিকগঞ্জ সম্পাদক পরিষদের সাথে জেলা প্রশাসকের মতবিনিময় সভা ১৪ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা শাহজালাল ইসলামী ব্যাংকের১৪ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা পরীমনির বিরুদ্ধে নাসির উদ্দিনের মামলায় পিবিআইয়ের প্রতিবেদন টাইম ম্যাগাজিনের প্রভাবশালী ১০০ ব্যক্তির তালিকায় বাংলাদেশের মেরিনা ২৪ এপ্রিল থাইল্যান্ড সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

মানিকগঞ্জের হরিরামপুরে অগ্নিদগ্ধ গৃহবধু শক্তি গাঙ্গুলী মারা গেছেন

  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১ জুলাই, ২০২০
  • ৪৭০ বার দেখা হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার:

মানিকগঞ্জের হরিরামপুর উপজেলার ঝিটকা বাসুদেবপুর গ্রামের অগ্নিদগ্ধ গৃহবধু শক্তি গাঙ্গুলী (৩৫) মারা গেছেন। মঙ্গলবার রাত দুইটার দিকে তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান বলে নিশ্চিত করেছেন হরিরামপুর থানার অফিসার ইন চার্জ মুঈদ চৌধুরী।

তিনি বলেন, মঙ্গলবার দুপুর ১২ টার দিকে ঝিটকা বাসুদেবপুর গ্রামে নিজ বাড়িতে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন লাগিয়ে ওই নারী আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন -এমন সংবাদের ভিত্তিতে ঘটনাস্থেলে যান। স্থানীয়দের বরাত দিয়ে তিনি বলেন, নিহতের স্বামীর নাম শংকর গাঙ্গুলি (৫০) ঢাকায় আপন জুয়েলার্সে চাকুরি করেন।

স্বামী ঢাকায় থাকায় শক্তি গাঙ্গুলী তাঁর বৃদ্ধ শ্বাশুড়ি ও ৫ বছরে ছেলেকে নিয়ে নিজ বাড়িতে বাসুদেবপুরে থাকতেন। অভিযোগ আছে, বিয়ের পর থেকেই ঐ গৃহবধুকে তার শ্বাশুড়ি রমা গাঙ্গুলী শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করে আসছেন। মাঝে মধ্যেই তিনি ঐ গৃহবধুকে কারণে অকারণে গালিগালাজ ও মারধর করতেন।

শ্বাশুরির কথায় নিহতের স্বামীও মাঝে মাঝে মারধর করতেন। মঙ্গলবার দুপুরেও শ্বাশুড়ি গৃহবধুকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেছেন। ঝগড়ার কোন একসময় নিজের গায়ে আগুন লাগিয়ে দেন ওই গৃহবধু। আশেপাশের লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে মুন্নু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়।

কিন্ত তাঁর শারীরিক অবস্থা খুবই খারাপ থাকায় তাঁকে সেখান ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ণ ইউনিটে ভর্তি করা হয়। নিহতের বাবা-মা কেউই বেঁচে নেই। একজন ভাই আছেন-তিনি শারীরিক প্রতিবন্ধী। এখনো নিহতের পরিবার থেকে কোন অভিযোগ করা হয়নি বলে জানান হরিরামপুর থানার অফিসার ইন চার্জ মুঈদ চৌধুরী।

শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরও খবর
© All rights reserved © 2014 Amar News
Site Customized By Hasan Chowdhury