1. hasanchy52@gmail.com : admin :
  2. amarnews16@gmail.com : Akram Hossain : Akram Hossain
রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:২১ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
সিএনজি স্টেশন আজ থেকে ৪ ঘণ্টা করে বন্ধ মানিকগঞ্জে ফুঁ দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়া সাধুবাবাকে খুঁজে পেয়েছে পুলিশ মানিকগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত | আমার নিউজ আগামী ২০ দিনের মধ্যে ১২ থেকে ১৭ বছরের শিক্ষার্থীদেরও টিকা দেওয়া হবে- মানিকগঞ্জে স্বাস্থ্য মন্ত্রী গবেষণা: ফাইজারের চেয়ে মডার্নার টিকা বেশি কার্যকর টেকসই ভবিষ্যতের জন‌্য প্রধান অর্থনীতির দেশগুলোর ভূমিকা চান প্রধানমন্ত্রী মানিকগঞ্জের পশ্চিম সেওতা ঐতিহ্যবাহী ভেলা ভাসানো উৎসব অনুষ্ঠিত মানিকগঞ্জে আওয়ামী লীগ নেতা আপেলের কন্যা সৃষ্টির জন্মদিনে ছিন্নমুল অসহায় মানুষের মাঝে খাবার বিতরন গৌরীপুরে রাস্তার দু’ধারে পুকুরের সারি ও খালাখন্দে ভরা রাস্তায় জনদূর্ভোগ চরমে মানিকগঞ্জে হেরোইনসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার | আমার নিউজ

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় সৎ ভাইয়ের ধর্ষণে ছোট বোন অন্তঃসত্ত্বা

  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ২০৪ বার দেখা হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার,

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় সৎ ভাইয়ের ধর্ষণে ছোট বোন (১৪) অন্তঃসত্ত্বা। এনিয়ে এলাকায় চলছে গুঞ্জন।

ওই কিশোরী ও অভিযুক্ত ধর্ষক সাটুরিয়া উপজেলার জালশুকা গ্রামের একই পিতার সন্তান।

গতকাল (৯ সেপ্টেম্বর) বৃহস্পতিবার রাতে ধর্ষিতা কিশোরী স্থানীয়দের জানায়, এক বছরের বেশি সময় ধরে নিজের সৎ ভাইয়ের হাতে ধর্ষণের শিকার সে, ধর্ষণে বাধা দিতে গেলে মারধর করা হতো তাকে, বিয়ের প্রলোভন দিয়ে ওই কিশোরী মেয়েটিকে বিভিন্ন সময় নিজ ঘরে ধর্ষণ করত সৎ ভাই সুজন মিয়া (২২)। ধর্ষক সুজন পেশায় মিষ্টি দোকানের কর্মচারী।

কিশোরি বিষয়টি তার মাকে জানালেও কোন প্রতিকার পায়নি বলে অভিযোগ করেন।

বাবা কৃষক, মা আগে প্রবাসী ছিল এখন দিন মজুর। সম্প্রতি তার শারীরিক পরিবর্তন দেখা দিলে তার মা তাকে জিজ্ঞাসা করলে সে পুরো ঘটনা খুলে বলে।

ওই কিশোরীর মা তারাবানু বেগম বলেন, আমাদের অজ্ঞাতে সুজন আমার মেয়েকে ধর্ষণ করছে, পরীক্ষা করে দেখেছি বর্তমানে সে ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা। অভিযুক্ত সুজনের বক্তব্য নিতে কোথাও খুঁজে পাওয়া যায়নি।

সুজনের পিতা মো. হাসান মিয়া বলেন, আমরা এলাকার মাতাব্বরদের কাছে বিষয়টি বলেছি তারা সমাধান করে দিবে বলছে।

মুক্তিযোদ্ধা লীগ নেতা স্থানীয় গ্রাম্য মাতব্বর শামীম হোসেন বলেন, আমরা এলাকায় বসে বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করছি, ইতিমধ্যে ষ্ট্যাম্প কিনে দুপক্ষের স্বাক্ষর নিয়েছি। এমন অপরাধের বিচার আপনারা করতে পারেন কিনা প্রশ্ন করলে তিনি জানান, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আবুল বাশার সমাধান করে দিয়েছেন।

এ ব্যাপারে সাটুরিয়া উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ আবুল বাশার সব কিছু অস্বীকার করে বলেন, আমি এ বিষয়ে কিছুই জানি না।

সাটুরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আশরাফুল আলম বলেন, এ ব্যাপারে কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরও খবর
© All rights reserved © 2014 Amar News
Site Customized By Hasan Chowdhury